অক্টোবর ১৯, ২০২১
মানচিত্র
অপরাধ

নয়াপল্টন থেকে গলায় ধারালো অস্ত্রের আঘাতে রক্তাক্ত গৃহকর্মীকে উদ্ধার

রাজধানীর নয়াপল্টন থেকে গলায় ধারালো অস্ত্রের আঘাতে রক্তাক্ত ও মুমূর্ষু এক গৃহকর্মীকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেলে ভর্তি করা হয়েছে। নয়াপল্টনের ফারুক টাওয়ারের ১৬ তলার একটি রান্নাঘরে রক্তাক্ত অবস্থায় পাওয়া যায় ১৬ বছর বয়সী গৃহকর্মী কুলসুম আক্তারকে।

বৃহস্পতিবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) সকালে গৃহকর্তা ও বড় ছেলে কাজে বেরিয়ে যান। বাসায় ঘুমিয়ে ছিলেন গৃহকর্ত্রী, বড় ছেলের স্ত্রী ও বাড়ির ছোট ছেলে।
সকাল আটটায় কুলসুম নাস্তা বানিয়ে দিলেও সকাল সাড়ে নয়টায় রান্নাঘরে কুলসুমের রক্তাক্ত দেহ পড়ে থাকতে দেখেন গৃহকর্তার ছেলের বউ। গৃহকর্তার ছেলের বউ আকলিমা আক্তার প্রিয়া বলেন, ‘কিচেনে গিয়ে দেখি ওনি রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে আছে। তারপর আমি আমার শাশুড়িকে ডাকছি।’তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে আসেন গৃহকর্ত্রী ফেরদৌসি। তিনি জানান, তার গলায় ধারালো অস্ত্রের আঘাতের চিহ্ন পাওয়া গেছে। কুলসুমের কাপড় রক্তে ভেজা ছিলও বলে জানান গৃহকর্ত্রী।
এঘটনায় প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের জন্য গৃহকর্তার দুই ছেলেকে পুলিশ হেফাজতে নেয়া হয়েছে। পুলিশের বিভিন্ন বিভাগের সদস্যরা তদন্ত করে দেখছেন ঘটনার কারণ। আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়ার কথা জানিয়েছে পুলিশ।
পল্টন থানা ওসি হিরন্ময় বাররী বলেন, ‘আমরা তার গলায় বিরাট একটি জখম পেয়েছি। সবকিছু মিলিয়ে যে যে ব্যবস্থা গ্রহণ করা দরকার, সব ব্যবস্থা আমরা গ্রহণ করব।
লক্ষ্মীপুরের কুলসুম দীর্ঘ আড়াই বছর ধরে এ বাসায় কাজ করতেন।

Related posts

মাদক চোরাকারবারীর বাড়ি থেকে গুলিসহ অস্ত্র উদ্ধার

zilian

হত্যা মামলা, কাদের মির্জার কার্যালয় ঘিরে রেখেছে র‌্যাব-পুলিশ

srabon

রাজধানীতে বিদেশে মানবপাচারের দায়ে আটক ৪

Labonno

Leave a Comment

Translate »