জানুয়ারি ২৪, ২০২২
মানচিত্র
জাতীয়

অবহেলায় আছে দোহারের মুক্তিযুদ্ধ স্মৃতি জাদুঘর

অবহেলায় পড়ে আছে ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতি বিজরিত ঢাকার দোহারের রাইপাড়া ইউনিয়নের লক্ষ্মীপ্রসাদ গ্রামের পোদ্দার বাড়ি মুক্তিযুদ্ধ ক্যাম্প। ২০১২ সালে মুক্তিযুদ্ধ স্মৃতি জাদুঘর সূচনার ঘোষণা দিলেও অজ্ঞাত কারণে তা আলোর মুখ দেখেনি।

স্থানীয় কয়েকজন বীর মুক্তিযোদ্ধা জানান, বিশ্বের প্রতিটি জাতি তাদের বীরত্বের নজির রেখেছেন। সংরক্ষণ করেছেন তাদের ইতিহাসের স্মৃতি। কিন্তু দুঃখের সাথে বলতে হয়, আমরা যাদের কারণে এই মহান বিজয় পেলাম তাদের স্মৃতি নিয়ে ষড়যন্ত্র চলছে। স্থানীয় কিছু কুচক্রী মহল এই জাদুঘরটিকে আজও পরিপূর্ণ জাদুঘরে রুপান্তর করতে অপতৎপরতা চালিয়ে যাচ্ছে। এদিকে কালের বিবর্তনে হারিয়ে যেতে বসেছে জাদুঘর ভবনটি। অখিল পোদ্দারের পরিত্যক্ত এই বাড়িতে ১৯৭১ সালে দোহার ও নবাবগঞ্জের মুক্তিযোদ্ধাদের ঘাটি ছিল। স্থানটি দুই উপজেলার সীমান্তবর্তী হওয়ায় মুক্তিযোদ্ধারা সহজে খবরা-খবর দেয়া নেয়া করতে পারতো। স্বাধীনতার পর মুক্তিযোদ্ধারা বাড়িটিকে মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতি জাদুঘর ঘোষণা করেন। এমতাবস্থায় সেটি ঝুঁকিপূর্ণ ভবনে পরিণত হয়েছে।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, এই বাড়িটির জমি প্রায় ৫২ শতাংশ। স্বাধীনতা পরবর্তী সময়ে ইকরাশী গ্রামের মৃত আনোয়ার খান মেম্বার এই বাড়িটি লিজ নেন। দীর্ঘদিন তিনি বাড়িটি ভোগ দখল করেন। ২০১২ সালে মুক্তিযোদ্ধাদের আবেদনের ভিত্তিতে তৎকালীন দোহার উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তা বাড়িটি মুক্তিযোদ্ধা স্মৃতি জাদুঘর করার ঘোষণা দেন। পরবর্তী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ আল আমিন লিজ বাতিল করে ভবন ও জমি দখলমুক্ত করে মুক্তিযোদ্ধাদের কাছে হস্তান্তর করেন। সে অনুযায়ী অখিল পোদ্দারের বাড়িটি বর্তমান মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতি সংরক্ষণ জাদুঘরের নিজস্ব সম্পত্তি হিসাবে বিবেচিত।

বাংলাদেশ কৃষকলীগের সহ-সভাপতি মো. আবুল হোসেন বলেন, স্বাধীনতা যুদ্ধের স্মৃতি রক্ষায় দোহার নবাবগঞ্জের মুক্তিযোদ্ধাদের দীর্ঘদিনের একটি লালিত স্বপ্ন। সরকারীভাবে কিংবা সমাজের বিত্তশালীরা এগিয়ে আসলেই প্রিয় মুক্তিযোদ্ধাদের দীর্ঘদিনের স্বপ্নটি বাস্তবায়ন হতে পারে। গড়ে উঠতে পাড়ে একটি দর্শনীয় মুক্তিযুদ্ধ যাদুঘর। যা আগামী প্রজন্মকে দেশের প্রতি ভালবাসা ও দেশপ্রেমিক নাগরিক হতে সাহায্য করবে।

সাকিব

Related posts

ঢাকায় ফিরলেন পাইলটের হার্ট অ্যাটাক করা সেই ফ্লাইটের যাত্রীরা

Maydul Islam

‘বিডি ক্লিন’কে ১ লক্ষ সাড়ে ৯৬ হাজার টাকার চেক দিলেন মেয়র আতিকুল ইসলাম।

sahadat Hossen

অভিনেতা কাদেরের মৃত্যুতে শোক জানিয়েছেন ফখরুল

zilian

Leave a Comment

Translate »