জানুয়ারি ২৪, ২০২২
মানচিত্র
লাইফ স্টাইল

ঘুমানোর আগে কিছু খাবার এড়িয়ে চলুন

ঘুমাতে যাওয়ার আগে যদি এমন খাবার খান, যা আপনার ভালো ঘুমের জন্য সহায়ক নয়, তখন ঘুমে সমস্যা হবে।

চলুন জেনে নেয়া যাক, সেই খাবারগুলো

কফি:  কফি পানে ঘুমের ব্যাঘাত হয়। ক্যাফেইন শরীরে থাকে কয়েকঘণ্টা তাই শেষ বিকালে বা ঘুমাবার আগে কয়েকঘণ্টা কফি পানে বিরত থাকা উচিত। কফির বদলে দুধ খেলে ভালো। এছাগা, আইসক্রিম, চকলেট, ক্যান্ডিবার ইত্যাদিতে ফ্যাট রয়েছে। ঘুমানোর আগে ফ্যাটযুক্ত কোনো খাবার খাবেন না।

এলকোহল:  নিদ্রাচক্রকে বিশৃঙ্খল করে দেয় এলকোহল। শরীরের উপরও এর প্রভাব ক্ষতিকর। শোয়ার আগে নিয়মিত মদ্যপান করলে, ঘুম নষ্ট হয়, মধ্যরাতে ঘুম ভেঙে যায়।

কমলার রস:  শোয়ার আগে কমলার রস ভালো পানীয় নয়। খুব অম্লধর্মী এর মিষ্টি তাই ঘুমের জন্য ভালো না।

সোডা:  কেবল রাতেই নয়, যে কোনও সময় সোডা পান স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর। এতে প্রচুর সুগার, রাতে থাকবেন জাগরণে।

ঝাল মসলা খাবার:  ঝাল খেলে রাতে সহজে ঘুম হবে না। শোয়ার আগে ঝাল মসলা খাবার খাওয়া ঠিক নয়। এটি উস্কে দেয় গ্যাস্ট্রোইসোফিজিয়লি রিফ্লেক্স যা ঘুমের ব্যাঘাত ঘটায়। মসলাতে আছে এন্টিঅক্সিডেন্ট যা উজ্জীবিত করে।

কার্ব ও সুগার:  ডেজার্ট, পায়েস, কনফেকশনারি, প্যাস্ট্রি রাতে শোয়ার আগে খাওয়া ঠিক নয়। কারণ ঘুমাবার আগে এসব খাবার খেলে রক্তে বাড়ে সুগার মান তবে কিছুক্ষণ পরই সুগার মান ধপাস্ করে নেমে আসে, আর ক্ষুধা লাগে আবার। দাঁত ও মাড়ির ক্ষতি করে সুগার।

সবজি ও স্ন্যাকস:  শাক-সবজি আমাদের শরীরের জন্য উপকারী। কিন্তু এতে প্রচুর ফাইবার থাকায় পরিপাক হয় ধীরে। ফলে ঘুম আসতে দেরি হয়। আবার ভাজাপোড়া খাবারে প্রচুর মনোসোডিয়াম গ্লুটামেট থাকে যা ঘুমে সমস্যা তৈরি করে। এর পাশাপাশি, পাস্তা বা পিৎজা এ ধরনের খাবার ফ্যাটি গোত্রীয়। এগুলো ঘুমের সময় দেহের ওজন বাড়িয়ে দেয়। সাকিব

Related posts

শীতে শিশুকে উষ্ণ রাখতে কী করবেন

Labonno

জেনে নিন কন্টাক্ট লেন্স ব্যবহারের সতর্কতা

Maydul Islam

কোমল ঠোঁট পেতে কী করবেন?

Maydul Islam

Leave a Comment

Translate »